শুরু করছি আল্লাহ্‌র নামে যিনি পরম করুনাময় অতি দয়ালু, মেহেরবান ও ক্ষমাশীল

১৭তম এবং ১৮তম সপ্তাহ: কেমন কাটবে আপনার গর্ভাবস্থার প্রত্যেকটি সপ্তাহ

মা ও শিশু


কেমন কাটবে আপনার গর্ভাবস্থার প্রত্যেকটি সপ্তাহ

১৭তম এবং ১৮তম সপ্তাহ

সন্তান সৎ ও নেক হওয়ার অন্যতম শর্ত হচ্ছে, সন্তান মায়ের গর্ভে থাকা অবস্থা থেকেই কিছু বিধিমালা মেনে চলা। সন্তান যখন মায়ের গর্ভে থাকে, তখন ভ্রুণ অবস্থা থেকে মায়ের যাবতীয় আমল ও আখলাক গর্ভে থাকা সন্তানের ওপর বিশেষ প্রভাব বিস্তার করে। তাই এক্ষেত্রে গর্ভবতী মায়ের প্রধান কর্তব্য হচ্ছে, গোনাহ ও আল্লাহর নাফরমানি থেকে নিজেকে বিরত রাখা। আর বাবার দায়িত্ব হচ্ছে, স্ত্রী-সন্তানের জন্য হালালভাবে উপার্জিত সম্পদ দিয়ে পরিবারের ব্যয় বহন করা।
এ ছাড়া আরও কিছু পালনীয় বিষয় হলো
১. সন্তান গর্ভে থাকা অবস্থায় তার মঙ্গলকামনায় বেশি বেশি দোয়া করা ও আল্লাহর রহমত কামনা করা।
২. প্রতিদিন পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করা।
৩. প্রতিদিন ফজরের নামাজের পর এবং রাতে ঘুমানোর পূর্বে ১১ বার সূরা ইখলাস পাঠ করা।
৪. প্রতিদিন সকাল-সন্ধ্যায় প্রিয় নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের প্রতি দরূদ পাঠ করা।
৫. যদি সম্ভব হয় তাহলে প্রতিদিন সূরা ইয়াসিন তেলাওয়াত করা।
৬. দান-খয়রাত করা। মানুষের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করা।


বিঃ দ্রঃ ছেলে অথবা সবই আল্লাহর দান; আল্লাহ্‌ বলেনঃ “যাকে ইচ্ছা কন্যা-সন্তান এবং যাকে ইচ্ছা পুত্র সন্তান দান করেন। অথবা তাদেরকে দান করেন পুত্র ও কন্যা উভয়ই এবং যাকে ইচ্ছা বন্ধ্যা করে দেন।” সূরা শুরাঃ ৪২/ ৪৯-৫০

আপনার শিশুর অস্থি কাঠামো নরম তরুণাস্থি থেকে মজবুত হাড়ে পরিবর্তিত হবে এবং নাভিরজ্জু শক্তিশালী এবং ঘন হতে থাকবে । সে এখন তার সব গ্রন্থি ভাঁজ করতে পারবে এবং তার স্বেদ গ্রন্থির বিকাশ হতে শুরু করবে । শিশু এখন তার হাত ও পা বাঁকাতে শুরু করেছে – আপনি সেই নড়াচড়া যতো দিন যাবে ততো অনুভব করতে পারবেন ।আপনার শিশুর রক্তনালী তার পাতলা চামড়ার ভেতর থেকে দেখা যাবে এবং তার কান ঠিকঠাক জায়গায় চলে এসেছে যদিও সেগুলি এখনও তার মাথা থেকে একটু বহিরমুখী হয়ে আছে । মাইলিনের একটি প্রতিরক্ষামূলক আচ্ছাদন তার স্নায়ুর চারপাশে গঠিত হতে শুরু করেছে যা ওর জন্মের এক বছরের পর অব্দি অব্যাহত থাকবে। এই দুই সপ্তাহে আপনার শিশুর দৈর্ঘ্য ৫-৫.৫ ইঞ্চি হবে এবং ওর ওজন এখন ১৪১.৭ – ১৯৮.৪ গ্রাম হবে ।

সপ্তাহ ১৭
বিগত দুই সপ্তাহের মধ্যে আপনার শিশুর ওজন দ্বিগুণ হয়ে গেছে । তার চর্বি গঠন হতে শুরু করেছে যা আপনার শিশুকে তাপ উৎপাদন করতে ও মেটাবলিজমে সাহায্য করবে । শিশুর ফুসফুস এখন অ্যামনিয়োটিক তরল বাষ্পীভূত করতে শুরু করেছে এবং ওর সংবহন এবং মূত্রাধার প্রণালী কাজ করতে শুরু করে দিয়েছে । আপনার শিশুর মাথা, ভ্রু এবং চোখের উপরভাগ চুলে ভর্তি হতে শুরু করেছে । আপনার শিশুর শরীরে পর্যাপ্ত চর্বি গঠন না হওয়া অব্দি তার শরীর লানুগো নামক কেশে আবৃত থাকবে যাতে আপনার শিশু উষ্ণ থাকে । শিশুর ত্বক এখন ভার্নিক্স নামক একটি মোমের মতো পদার্থে আবৃত আছে যা ওর ত্বককে অ্যামনিয়োটিক তরল থেকে রক্ষা করছে ।

সপ্তদশ সপ্তাহের জন্য পরামর্শ
আপনার ওজন এখন ৫-১০ পাউন্ড বৃদ্ধি পেয়েছে এবং আপনার ক্ষুধাবোধও আগের থেকে উত্থিত হয়েছে । যেহেতু আপনার পেট ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে তাই আপনার মাধ্যাকর্ষণের কেন্দ্রও পরিবর্তন হবে যার ফলে আপনি মাঝে মাঝে ভারসাম্যহীনতা বোধ করতে পারেন । তাই হিলতোলা জুতো পরলে আপনার পড়ে যাওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে । এইসময় আপনি পড়ে গেলে সেটা আপনার এবং আপনার শিশুর জন্য বিপজ্জনক হতে পারে । সপ্তদশ সপ্তাহে আপনার ডিম্বাশয় থেকে রেলাক্সিন নামক হরমোন নিঃসৃত হয় যা আপনার শরীরের লিগামেন্ট এবং জয়েন্টগুলোকে প্রসবের জন্য প্রস্তুত করতে, সেগুলিকে শিথিল করতে সাহায্য করে । যেহেতু এই শিথিলতার ফলে আপনার কোমরে ব্যথা হতে পারে তাই ব্যায়াম করার সময় আপনার সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে কারণ অসাবধানতার কারণে আপনার পেশীতে টান লেগে যেতে পারে ।

সপ্তদশ সপ্তাহের জন্য যত্ন
মাথা ঘুরে যাওয়া বা অঞ্জান হয়ে যাওয়া এড়াতে আপনি শায়িত অবস্থা থেকে ওঠার সময় বা বসা থেকে দাঁড়ানোর সময় সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে ।

সপ্তাহ ১৮
আপনার শিশুর দ্রুত বৃদ্ধি এখন হ্রাস পেতে থাকলেও তার প্রতিবর্তী ক্রিয়া সক্রিয় হতে শুরু করেছে । আপনার শিশু এখন হাই তুলতে পারছে, লম্বা হতে পারছে এবং নানাবিধ মুখভঙ্গি এমনকি ভ্রূকুটিও করতে পারছে । তার স্বাদেন্দ্রিয়র বিকাশ ঘটতে শুরু করেছে এবং সে এখন তিক্ত থেকে মিষ্ট স্বাদের পার্থক্য করতে পারছে । এখন তার ঠোঁটে হাত বুলিয়ে দিলে শিশুর চোষণ শুরু করবে এবং ঢোক গিলতে এমনকি হেঁচকি তুলতেও পারবে । শিশুর অক্ষিপট এখন আলোর প্রতি সংবেদনশীল হতে শুরু করেছে । এখন যদি উজ্জ্বল আলো আপনার পেটের উপর ফেলা হয় তাহলে আপনার শিশু সম্ভবত তার চোখ আলোর রশ্মি থেকে রক্ষা করার চেষ্টা করবে ।

অষ্টাদশ সপ্তাহের জন্য পরামর্শ
আপনি আপনার জরায়ু এখন আপনার নাভির নিচে অনুভব করতে পারবেন । এখন শিশুর নড়াচড়াও বোধ করতে শুরু করবেন । এখন থেকে ২২ সপ্তাহের মধ্যে একটি আল্ট্রাসাউন্ড পরীক্ষার দ্বারা আপনার শিশুর বৃদ্ধি ও উন্নয়ন মূল্যায়ন করে প্রসবের দিন নির্ধারণ করতে পারবেন । আপনার হৃদপিন্ড এখন আপনার গর্ভাবস্থাকে সমর্থন করার জন্য ৪০-৫০% বেশী কাজ করছে । এখন আপনার অম্বল হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে কারণ আপনার হরমোন আপনার শ্বাসনালী ও আপনার পেটের(যা অ্যাসিড পূর্ণ) সাথে সংযোগ স্থাপন করার পেশীগুলিকে ঢিলা করে দিয়েছে । এর অর্থ এই যে অ্যাসিড আপনার পাকস্থলী থেকে মুখে উগরে এসে আপনার বুকের মধ্যে জ্বলনবোধ সৃষ্টি করছে ।

অষ্টাদশ সপ্তাহের জন্য যত্ন
অষ্টাদশ সপ্তাহে শরীরচর্চার জন্য হাঁটাচলা করা হলো সবচেয়ে সহজ পদ্ধিতি । অনেক গর্ভবতী মহিলা সাঁতার কাটতে পচ্ছন্দ করেন কারণ পানি তাঁদের অতিরিক্ত ওজন ধরে রাখতে সহায়তা করে । অন্য মহিলারা আবার যোগব্যায়াম বেছে নেন তাঁদের শরীর সুস্থ রাখতে আর সেইসাথে ব্যথা বা যন্ত্রনার উপশমের জন্য ।

তথ্যসূত্রঃ WebMD

সকল ব্যাপারেই একমাত্র আল্লাহর উপর ভরাসা করাই প্রত্যেক মুসলিমের কর্তব্যঃ
আল্লাহই সবচেয়ে ভাল জানেন

Leave a Reply

Close Menu