Skip to content

নামায এবং যাকাত ফরজ হওয়ার দলীল

নামায এবং যাকাত ফরজ হওয়ার দলীল

নামায ও যাকাত ফরজ হওয়ার দলীলগুলো সকলের নিকট অতি সুস্পষ্ট।

এগুলো বর্ণনা করে শেষ করা যাবে না। এখানে সংক্ষেপে কয়েকটি দলীল উল্লেখ করা হল।

আল্লাহ তা’আলা বলেনঃ

فَإِنْ تَابُوا وَأَقَامُوا الصَّلاَ وَآتَوْا الزَّكَاةَ فَخَلُّوا سَبِيلَهُمْ

‘‘তারা যদি তাওবা করে, নামায কায়েম করে এবং যাকাত প্রদান করে, তবে তাদের পথ ছেড়ে দাও’’। (সূরা তাওবাঃ ৫)

আল্লাহ তা’আলা আরো বলেনঃ

فَإِنْ تَابُوا وَأَقَامُوا الصَّلاَ وَآتَوْا الزَّكَاةَ فَإِخْوَانُكُمْ فِي الدِّينِ

‘‘অবশ্য তারা যদি তাওবা করে, নামায কায়েম করে এবং যাকাত প্রদান করে, তবে তারা তোমাদের দ্বীনী ভাই। (সূরা তাওবাঃ ১১)

আল্লাহ তা’আলা আরো বলেনঃ

وَمَا أُمِرُوا إِلَّا لِيَعْبُدُوا اللَّهَ مُخْلِصِينَ لَهُ الدِّينَ حُنَفَاءَ وَيُقِيمُوا الصَّلَاةَ وَيُؤْتُوا الزَّكَاةَ وَذَلِكَ دِينُ الْقَيِّمَةِ

‘‘তাদেরকে এ ছাড়া কোন নির্দেশ করা হয়নি যে, তারা খাঁটি মনে একনিষ্ঠভাবে আল্লাহর ইবাদত করবে, নামায কায়েম করবে এবং যাকাত দেবে। বস্ত্ততঃ এটাই হচ্ছে সুদৃঢ় দ্বীন’’।

সূত্রঃ

বাংলা হাদিসঃ হাফেয বিন আহমাদ আল-হাকামী (রহঃ)

1 thought on “নামায এবং যাকাত ফরজ হওয়ার দলীল”

  1. Pingback: নামাজ শিক্ষা - Madbor মাদবর

Leave a Reply