বিবাহ

বিয়ের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা

বিয়ের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা অন্ন-বস্ত্র-বাসস্থান ও চিকিৎসা যেভাবে মানব জীবনের অপরিহার্য প্রয়োজন, শিা-দীার প্রয়োজনীয়তা যেভাবে যুক্তিতর্কের ঊর্ধ্বে, একজন যৌবনদীপ্ত মানুষের সুস্থ জীবন যাপনের জন্য বিয়ের অপরিহার্যতা তেমনই। তাই ইসলামে এর গুরুত্ব অপরিসীম। ফযীলত ও মর্যাদা তুলনাহীন। কুরআন মাজীদে ইরশাদ হয়েছে, “তোমাদের মধ্যে যে পুরুষের স্ত্রী নেই আর যে নারীর স্বামী নেই তাদের এবং তোমাদের দাস-দাসীর […]

Continue Reading
নামায / স্বলাত/ নামায

নামাজের মাসায়েল : নামাজের ধারাবাহিক বর্ণনা

নামাজের মাসায়েল : নামাজের ধারাবাহিক বর্ণনা নামাজের ফরজসমূহ নামাজ শুরুর পূর্ব থেকে শুরু করে নামাজের শেষ পর্যন্ত মোট তেরটি কাজ ফরজ। কোনো নামাজে এগুলোর কোনো একটিও যদি ছুটে যায় তাহলে নামাজ হবে না। সেই নামাজ তখন পুনরায় আদায় করতে হবে। নামাজের বাইরে সাত ফরজ। ১. নামাজের জায়গা পবিত্র রাখা; ২. শরীর পবিত্র রাখা; ৩. জামা […]

Continue Reading
ভালবাসা স্বামী ও স্ত্রী

ইসলামের দৃষ্টিতে বৈধ ভালবাসা ও নিষিদ্ধ প্রেম

ইসলামের দৃষ্টিতে বৈধ ভালবাসা ও নিষিদ্ধ প্রেম চারটি অক্ষরের সমন্বয় খুব ছোট একটি শব্দ ভালবাসা যাকে আরবী ভাষায় মুহাব্বত ও ইংরেজী ভাষায় Love বলে। যার অর্থ হচ্ছে, অনুভূতি, আকর্ষণ, হৃদয়ের টান; যা মানুষের অন্তরে আল্লাহপাক সৃষ্টিগতভাবে দিয়ে দেন। সাধারণত ভালবাসা দুই ধরনের (১) বৈধ ও পবিত্র (২) অবৈধ ও অপবিত্র । বিবাহের পূর্বে আধুনিক যুবক-যুবতীরা […]

Continue Reading
ইস্তেহাযা ও নিফাস (মাসিক)

নিফাস-(মাসিক)

নিফাস-(মাসিক) নারীর জরায়ু থেকে সন্তান প্রসবের কারণে যে রক্ত বের হয়। নিফাসের সময়সীমা নিফাসের সর্বনিম্ন সুনির্দিষ্ট সময় বলতে কিছু নেই। তবে সর্বোচ্চ সময় হলো চল্লিশদিন। তবে যদি নারী এর পূর্বে পবিত্রতা দেখে তবে গোসল করবে ও নামাজ আদায় করবে। নিফাসের আহকাম ১- প্রসবের পর যদি রক্ত দেখা না যায় – এরূপ অবশ্য খুব কমই ঘটে […]

Continue Reading
ইস্তেহাযা ও নিফাস (মাসিক)

হায়েয, ইস্তেহাযা ও নিফাস (মাসিক)

হায়েয, ইস্তেহাযা ও নিফাস (মাসিক) আভিধানিক অর্থে হায়েয কোনো কিছু প্রবাহিত হওয়া শরীয়তের পরিভাষায় হায়েয নারীর সুস্থ জরায়ু থেকে সুনির্দিষ্ট সময়ে, কোনো কারণ ব্যতীতই যে রক্তস্রাব বের হয় তাকে হায়েয বলে। হায়েযের রক্তস্রাবের ধরণ কালো, যেন তা পুড়ে-যাওয়া কৃষ্ণ কোনো পদার্থ, কষ্টদায়ক, দুর্গন্ধযুক্ত, এবং এ সময় নারী প্রচন্ড তাপ অনুভব করে। হায়েয শুরু হওয়ার বয়স […]

Continue Reading
গর্ভবতী নবজাতক মা ও শিশু সন্তান

নবজাতক: প্রথম গোসল কখন করানো উচিত?

নবজাতক: প্রথম গোসল কখন করানো উচিত? আপনার নবজাতকটি যদি পূর্ণকালীন এবং সুস্থতার সহিত জন্মগ্রহণ করে, তাহলে আপনি আপনার নবজাতককে আপনার খুশিমতো যত তাড়াতাড়ি ইচ্ছা তার প্রথম গোসলটা হালকা গরম পানি দিয়ে করিয়ে দিতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই নবজাতকটি জন্মের কমপক্ষে ১ ঘন্টা পর এবং খুবই স্বল্প সময়ের মধ্যে (৫-১০ মিনিটের বেশি নয়) গোসলের কাজ শেষ […]

Continue Reading
নারী মুসলিম মেয়ে স্ত্রী

মুসলিম নারীর পর্দা ও চেহারা ঢাকার অপরিহার্যতা

মুসলিম নারীর পর্দা ও চেহারা ঢাকার অপরিহার্যতা প্রথম দলীল : রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, إِذَا خَطَبَ أَحَدُكُمُ امْرَأَةً فَلاَ جُنَاحَ عَلَيْهِ أَنْ يَّنْظُرَ إِلَيْهَا إِذَا كَانَ إِنَّمَا يَنْظُرُ إِلَيْهَا لِخِطْبَتِهِ وَإِنْ كَانَتْ لاَ تَعْلَمُ অত্র হাদীছে দলীল গ্রহণের দিক হ’ল নবী করীম (ছাঃ) বিশেষভাবে বিয়ের প্রস্তাব দানকারীর জন্য প্রস্তাবিত মেয়ের প্রতি তাকানোকে অপরাধ হিসাবে গণ্য করেননি। […]

Continue Reading
আক্বীকা সন্তান

আকীকার ক্ষেত্রে নাবী (সাঃ)-এর সুন্নাত

আকীকার ক্ষেত্রে নাবী (সাঃ)-এর সুন্নাত ইমাম মালেক (রহঃ) মুআত্তা ইমাম মালেক গ্রন্থে এসেছে, ইমাম মালেক (রহঃ) কে আকীকাহ সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বললেন- আমি আকীকাহ শব্দটি পছন্দ করিনা। কারণ আকীকাহ শব্দটি আরবী عق শব্দ হতে গৃহীত। আক্কা অর্থ নাফরমানী করা অবাধ্য হওয়া। পিতা-মাতার অবাধ্য হওয়াকে আরবীতে عقوق الوالدين উকুকুল ওয়ালিদাইন বলা হয়। তাই ইমাম […]

Continue Reading
গর্ভবতী মা ও শিশু সন্তান

নতুন জন্মগ্রহণকারী একটি শিশুর ক্ষেত্রে করণীয়

নতুন জন্মগ্রহণকারী একটি শিশুর ক্ষেত্রে করণীয় নতুন সন্তান – নতুন মেহমান সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর করণীয় : নতুন সন্তান, নতুন মেহমান পৃথিবী জুড়ে মুসলমানদের ঘরে ঘরে প্রতি দিন আগমন হচ্ছে নতুন মেহমান ও নতুন সন্তানের। কিন্তু আমরা কজন আছি যারা এ সদ্য ভূমিষ্ঠ সন্তানের সূচনা লগ্নে ইসলামি আদর্শের অনুশীলন করি!? রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি অসাল্লামের বাতলানো […]

Continue Reading
গর্ভবতী নারী মা মা ও শিশু

প্রসব আরম্ভের লক্ষন সমূহ

মা ও শিশু প্রসব আরম্ভের লক্ষন সমূহ প্রসবের সম্ভাব্য তারিখ গর্ভের মোট সময় কাল ধরা হয় ৪০ সপ্তাহ বা ২৮০ দিন বা ঌ মাস ৭ দিন৷ শেষ মাসিকের প্রথম দিনটিকে গর্ভধারনের প্রথম দিন ধরে প্রসবের তারিখ নির্ধারন করা হয়ে থাকে৷ যেমন – গর্ভধারণের শেষ মাসিকের প্রথম দিন যদি ২০ ডিসেম্বর হয় তবে প্রসবের সম্ভাব্য তারিখ […]

Continue Reading
Back To Top