শুরু করছি আল্লাহ্‌র নামে যিনি পরম করুনাময় অতি দয়ালু, মেহেরবান ও ক্ষমাশীল

সুস্মিতা থাক


স্বামীর সাথে দেখা হলেই মুচকি হাস। অনুরূপ মহিলার সাথে সাক্ষাতেও হাসিমুখে সাক্ষাৎ কর। তোমার প্রতি তাদের হৃদয়ে ভালবাসা সৃষ্টি হবে। আর প্রতিপালকের কাছে তুমি সওয়াবও পাবে।

আল্লাহর রসূল (সাঃ) বলেছেন, “কল্যাণমূলক কোন কর্মকেই অবজ্ঞা করো না, যদিও তা তোমার ভাইয়ের সাথে হাসিমুখে সাক্ষাৎ করেও হয়।”(মুসলিম ২৬২৬)

অবশ্য কথায় কথায় ফিকফিকে হাসিও ভাল নয়।

আল্লাহর রসূল (সাঃ) বলেন, “তোমরা বেশী বেশী হেসো না। কারণ, বেশী হাসার ফলে হৃদয় মারা যায়।”(আহমাদ, ইবনে মাজাহ ৪১৯৩, সহীহুল জামে’ ৭৪৩৫)

ফ্যাকফ্যাক করে বা হো-হো করে অধিক পরিমাণে হাসলে হৃদয় মৃত হয়ে যায়; কঠোর হয়ে যায়। আর তখন সে হৃদয় কারো কোন হিতোপদেশ গ্রহন করে না, কারো নসীহতে তাসীর নায় না। পক্ষান্তরে আমাদের মহানবী (সাঃ)এর অভ্যাস ছিল মৃদু হাসা।

Close Menu